নিউইয়র্কে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফেন্ডস সোসাইটির পথমেলা ৯ জুন - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ১১:১৭, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

নিউইয়র্কে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফেন্ডস সোসাইটির পথমেলা ৯ জুন

editorbd
প্রকাশিত মে ২৬, ২০২৪
নিউইয়র্কে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফেন্ডস সোসাইটির পথমেলা ৯ জুন

Screenshot

ডেস্ক রিপোর্ট: নিউইয়র্কে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি দীর্ঘদিন ধরে কমিউনিটিতে নানা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এ সংগঠনটির আর্থিক স্বচ্ছতা, সাংবিধানিক কাঠামোসহ একাধিক বিষয়ে এখন প্রশ্ন উঠেছে। আসছে ৯ জুন বাংলা উৎসব পথমেলার আয়োজনকে সামনে রেখে এমন সব দুর্বলতা প্রকাশ্যে চলে এসেছে। সংগঠনটির বিভিন্ন আয়োজনের আয়-ব্যায়ের হিসেব প্রশ্নবিদ্ধ। কোন ব্যাংকে হিসাব পরিচালিত হয় সেসব সম্পর্কে কোন খবর রাখেননা সংগঠনের দায়িত্বশীল ব্যক্তিরাও। ২২ মে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ সম্পর্কে ব্যাখ্যা দেয়ার চেষ্টা করেছেন সংগঠনের সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার। নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় সমৃদ্ধ একটি বাঙালী কমিউনিটির বসবাস। কমিউনিটির শক্ত অবস্থান থাকলেও জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটিতে সংযুক্ত করা হয়নি কমিউনিটির গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের। কতিপয় মানুষ দিনের পর দিন ঘুরেফিরে চালাচ্ছেন এ সংগঠন। সংগঠনটির দূর্বল গঠনতন্ত্র এবং কার্যক্রম পরিচালনায় এ গঠনতন্ত্রের ভিত্তি না থাকায় দায়িত্বশীলদের জবাবদিহিতা তেমন একটা নেই বললেই চলে। এমন পরিস্থিতিতে সংগঠনটিকে সাংবিধানিক কাঠামোয় প্রতিষ্ঠিত করে জবাবদিহীতার আওতায় আনার দাবি উঠেছে । জানা গেছে, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠার পর প্রথম দুই বছর ট্যাক্স ফাইল করা হয়েছিল। বর্তমানে ট্যাক্স ফাইল ছাড়াই চলছে সংগঠনটি। এছাড়াও হালনাগাদ নেই সংগঠনটির করপোরেশনও। করোনাকালীন সময়ে সংগঠনটির কিছু মানবিক কার্যক্রম করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে তেমন কোন উল্লেখযোগ্য কর্মসূচিও চোখে পড়েনি।অবশ্য কিছুদিন আগে এক বাংলাদেশীকে হত্যায় দোষীর শাস্তির দাবিতে একটি সভা করতে দেখা গেছে তাদের। সংগঠনটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আল আমীন রাসেল বলেছেন, “জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উদ্যোগে বিভিন্ন প্রকার সামাজিক সাংস্কৃতিক আয়োজন হতো। আমি দুই মেয়াদে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। করোনাকালীন একবার পূর্ণ মেয়াদে ও আরেকবার ছয় মাস। এরপর আমি পদ থেকে পদত্যাগ করি। আমার সাথে বিভিন্ন বিষয়ে মতের অমিল ছিলো। বর্তমানে যেনতেনভাবেই চলছে সংগঠন। কোন হিসাব নিকাশ নেই। কোন ব্যাংকে একাউন্ট, কার কার নামে একাউন্ট এসব সাধারণ সম্পাদক ও ট্রেজারারও বলতে পারে কিনা আমার জানা নেই।” সংবাদ সম্মেলনে এ সব অভিযোগের ভিত্তিতে ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার বলেছেন, টাইম সেভিং ব্যাংকে সংগঠনের নামে ২০০৩ সাল থেকে একাউন্ট রয়েছে । সভাপতি ফখরুল ইসলাম, মোহাম্মদ বিলাল চৌধুরি ও কোষাধ্যক্ষর নামে একাউন্ট চালু রয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। জ্যামাইকা ফ্রেন্ডস সোসাইটির নতুন ভবন করবেন বলে চাঁদা তুলছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বাতাসে ঘোরা এমন প্রশ্নের জবাব দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। সংবাদ সম্মেলনে সভাপতি ফখরুল ইসলাম নিজে উপস্থিত থেকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন। কিন্তু মেলার ফ্লায়ারে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে এ এফ এম মিজবাহুজ্জামান এর নাম ব্যবহার করা হয়। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, মেলায় থাকবেন না তাই ভারপ্রাপ্ত সভাপতির নাম ব্যবহার করেছেন। অথচ দুই সপ্তাহ পর মেলার প্রস্তুতি চলছে এবং এর সব তদারকি সভাপতি নিজেই করছেন। সংবাদ সম্মেলন সন্ধ্যা আটটায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও রাত সাড়ে নয়টায় সংবাদ সম্মেলন শুরু হয়। মেলার সদস্য সচিব রিজু মোহাম্মদের লিখিত বক্তব্যের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তর সুযোগ না দিয়ে মঞ্চে উপবিষ্টদের থেকে একে একে বক্তব্য শুরু করেন। এটা সেমিনার কিংবা মতবিনিময় সভা নয় বিষয়টি মনে করিয়ে দেন সাপ্তাহিক জন্মভূমি সম্পাদক রতন তালুকদার। এরপরও তারা ক্ষান্ত হননি। একে একে কথা বলেই যাচ্ছিলেন। এক পর্যায়ে কয়েকজন সম্পাদক ও সাংবাদিক বিরক্ত হয়ে সংবাদ স্থল থেকে বাইরে চলে যান। পরে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জে মোল্লা সানি বিষয়টি সম্পর্কে দুঃখ প্রকাশ এবং ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তবে সভাপতি কেন মেলায় থাকবেননা -এ নিয়ে সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে নানান গুঞ্জন চলছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সদস্য বলেন, ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।মেলায় নাচ গান হবে সে কারণে তিনি মেলা থেকে একটু দুরে থাকবেন। সংগঠনের সভাপতি হয়ে মেলায় কেন থাকবেননা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আমি কিছুদিন থাকবো না, তবে মেলায় থাকার চেষ্টা করবো।

সুত্র: ইউএসনিউজ অনলাইন ডটকম

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।