সাংবাদিক শর্মিলার সাথে বিশ্ববাংলা ফাউন্ডেশনের ইউকের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, সকাল ১১:১৬, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

সাংবাদিক শর্মিলার সাথে বিশ্ববাংলা ফাউন্ডেশনের ইউকের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত

editorbd
প্রকাশিত জুন ৮, ২০২৪
সাংবাদিক শর্মিলার সাথে বিশ্ববাংলা ফাউন্ডেশনের ইউকের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট: মির্জা আবুল কাসেম,লন্ডন থেকে-যুক্তরাজ্যে সফররত কলকাতার বিশিষ্ট সাংবাদিক শর্মিলা মাইতি’র সাথে বিশ্ব বাংলা ফাউন্ডেশনের ইউকের আয়োজনে ৬জুন বৃহস্প্রতিবার সন্ধ্যায় লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ব্রিটেনে বসবারত বাংলামিডিয়ার সাংবাদিক-সাহিত্যিক ও সূধীজনের এক প্রীতি আড্ডা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববাংলা ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা প্রবীণ সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সেক্রেটারী শাহ মোস্তাফিজুর রহমান বেলালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রীতি আড্ডায় বক্তব্য রাখেন লন্ডন বাংলাপ্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সৈয়দ নাহাশ পাশা, প্রবীণ সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসন, সাংবাদিক মুসলেহ উদ্দিন আহমদ, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সাবেক স্পীকার আহবাব হোসেন, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের মিডিয়া অফিসার সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান, এটিএন বাংলা ইউকের সাংবাদিক মোস্তাক আলী বাবুল, সাংবাদিক আব্দুল কাদির চৌধুরী মুরাদ, সাংবাদিক হেফাজুল করিম রাকিব, কবি মুজিবুল হক মনি, সাংবাদিক মোস্তফা কামাল মিলন, সাংবাদিক তাবারুকুল ইসলাম পারভেজ, লেখক গবেষক প্রিয়জিত দেবসরকার , কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব কিটন শিকদার, জালালাবাদ ফাউন্ডেশন ইউকে সম্পাদক আব্দুল বাছির, সাংবাদিক মরিয়ম রহমান পলি, সাংবাদিক জি আর সুহেল, সাংবাদিক আছাদুজ্জামান মুকুল, সাংবাদিক মহিদুল ইসলাম বাবলু, সাংবাদিক খালেদ মাসুদ রনি, মামুন কে চৌধুরী,সুরমান আলী,মাহমুদুর রহমান সানুর, সাংবাদিক আব্দুল হান্নান, সাংবাদিক সরওয়ার হোসেন, সাবেক কাউন্সিলার সাদ চৌধুরী, সাংবাদিক সাজিদুর রহমান, সাংবাদিক এম এ হান্নান, খালিছ মিয়া, কবি আসমা মতিন, শরমিতা হালদার,আব্দুস সত্তার, আমিনুল হক জিলু,প্রমুখ।জনমত সম্পাদক সৈয়দ নাহাশ পাশা ও নজরুল ইসলাম বাসন ব্রিটেনে বাঙ্গালীদের বসতি স্থাপন থেকে শুরু করে বাংলা সাংবাদিকতরার বিবরন তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানের অতিথি সাংবাদিক শর্মিলা মাইতির হাতে বিশ্ব বাংলা ফাউন্ডেশনের ক্রেট তুলে দেন আয়োজকরা। এ প্রীতি আড্ডায় বক্তারা বলেন এপার বাংলা, ওপার বাংলা ও তৃতীয় বাংলার মধ্যে বাংলা ভাষাভাষি শিল্প সংস্কৃতির মৈত্রী সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হবে। নবীন প্রবীন সাংবাদিক ও সংস্কৃতিকর্মীরা এর সেতুবন্ধন হয়ে আছেন এবং থাকবেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।