নিউইয়র্কে ব্যান্ডস’র বিজয় দিবস ও নববর্ষ উদযাপন : মুক্তিযোদ্ধা, কৃতি ছাত্র-ছাত্রী ও আদর্শ মা সংবর্ধনা - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, রাত ২:২৫, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

নিউইয়র্কে ব্যান্ডস’র বিজয় দিবস ও নববর্ষ উদযাপন : মুক্তিযোদ্ধা, কৃতি ছাত্র-ছাত্রী ও আদর্শ মা সংবর্ধনা

ADMIN, USA
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯
নিউইয়র্কে ব্যান্ডস’র বিজয় দিবস ও নববর্ষ উদযাপন : মুক্তিযোদ্ধা, কৃতি ছাত্র-ছাত্রী ও আদর্শ মা সংবর্ধনা

নিউইয়র্কে বাংলাদেশী-আমেরিকান ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক সোসাইটি ইউএসএ ইনক-ব্যান্ডস’র উদ্যোগে গত ২৯ ডিসেম্বর রোববার উৎসবমুখর পরিবেশে বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবস ও ইংরেজী নববর্ষ ২০২০ উদযাপিত হয়েছে।

ব্রঙ্কসের খলিল পার্টি সেন্টারে এদিন সন্ধ্যা থেকে নানা আয়োজনে দিবসটি উদযাপন করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে ছিল প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা ও কৃতি ছাত্র-ছাত্রী সংবর্ধনা, শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণী, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ, আলোচনা সভা, আদর্শ মা সম্মাননা প্রদান সহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম।

বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সংগীত বাজানোর পর মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন যোবায়ের আহমেদ রিন্টু। পবিত্র গীতা থেকে পাঠ করেন জীবন কৃষ্ণ মন্ডল। শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
অনুষ্ঠানে ব্যান্ডস’র পক্ষ থেকে ব্রঙ্কসে প্রথম বারের মত যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ৪০ জন আদর্শ মা কে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

ব্যান্ডস-এর সভাপতি সোলায়মান আলীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. শামীম মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের কর্মকর্তা তপন সেন।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ও উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি এক্টিভিস্ট মোহাম্মদ এন মজুমদার, আবদুর রহিম বাদশা, প্রফেসর মমতাজ শাহনাজ, কফিল চৌধুরী, মাহবুব আলম, রফিকুল ইসলাম, শরীফ কামরুল আলম হীরা, সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, রেক্সোনা মজুমদার, সাহেদ আহমেদ, আবদুল মুহিত, প্রদীপ মালাকার, সামাদ মিয়া জাকের, শ্যামল চন্দ্র চন্দ, কবি জুলি রহমান, মেহের চৌধুরী, জুঁই ইসলাম, আবদুল বাতেন ও ন্যান্সি খান।

মুক্তিযোদ্ধা আবু কায়সার চিশতীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান হয়। তিনি এসময় মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করেন।

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী নতুন প্রজন্মের মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন হাই স্কুল, কলেজ-ইউনিভার্সিটিতে চান্স পাওয়ায় তাদের আরও উৎসাহিত করার জন্য সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। শিশু-কিশোরদের পুরস্কার বিতরণ করা হয়। শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা পরিচালনায় ছিলেন সৈয়দা মাহমুদা কবীর ও মনিকা মন্ডল।
পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। পরিচালক মনিকা মন্ডল ও সুপ্রিয়া নন্দীর পরচালনায় আমাদের পাঠশালার শিক্ষার্থীরা সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ নেয়। এর মধ্যে প্রবাসী শিল্পীরাও ছিলেন। আবৃত্তিতে ছিলেন কবি জুলি রহমান ও জুঁই ইসলাম।
অনুষ্ঠানে বক্তারা মুক্তিযোদ্ধাদের জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে অভিহিত করে বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। তাদের কাছে কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। প্রবাসীদের নির্মল আনন্দ দান, নতুন প্রজন্ম ও মূলধারায় বাঙালী সংস্কৃতি তুলে ধরার প্রয়াসে ব্যান্ডস’র যাত্রা অব্যাহত থাকবে এ প্রতাশা বক্তাদের।
সভাপতি সোলায়মান আলী এবং সাধারণ সম্পাদক মো. শামীম মিয়া সংগঠনের পক্ষ থেকে ইংরেজী নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। তারা বলেন, ব্যান্ডস’র পক্ষ থেকে ব্রঙ্কসে এই প্রথম বারের মত যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ৪০ জন আদর্শ মা কে সম্মাননা জানান হল।
অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, কমিউনিটির নের্তৃবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী উপস্থিত ছিলেন। সার্বিক সহযোগিতায় ছিল মামুন’স টিউটোরিয়াল ও ব্রঙ্কসবাসী।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।