দেশে বিদেশের সাবেক ছাএনেতারা সিরাজুল আলম খান দাদা ভাইয়ের রোগমুক্তি কামনা

প্রকাশিত:সোমবার, ১৮ জানু ২০২১ ০৬:০১

দেশে বিদেশের সাবেক ছাএনেতারা সিরাজুল আলম খান দাদা ভাইয়ের রোগমুক্তি কামনা

হাকিকুল ইসলাম খোকন,যুক্তরাষ্ট্র  সিনিয়র সংবাদদাতা : দেশে-বিদেশে অবস্থানরত সাবেক ছাত্রনেতারা   এক বিবৃতিতে  সিরাজুল আলম খানের রোগমুক্তি কামনা করে     বলেন      বাঙালির জাতিরাষ্ট্র বিনির্মাণে সিরাজুল আলম খানের অবদান অপরিসীম। ১৯৬২ সালে নিউক্লিয়াস বা স্বাধীন বাংলা বিপ্লবী পরিষদ গঠন করে স্বাধীনতার মন্ত্রকে ছাত্র যুব সমাজের মননে ও চেতনার মাঝে বিস্তার করে দেয়ার কুশলী কারিগর তিনি। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে জাতি রাষ্ট্র ‘বাংলাদেশ’ গঠনের অন্যতম রূপকার তিনি। তাঁর নির্দেশনায় প্রণীত হয় স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা, রচিত হয় স্বাধীনতার ইশতেহার। তিনি ছিলেন মুজিব বাহিনীর অন্যতম সংগঠক।। রাষ্ট্রীয় পদ-পদবী বা স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির সকল মোহ ত্যাগ করে তিনি নিজেকে স্থাপন করেছেন অপার্থীব উচ্চতায়। এমন নির্মোহ ব্যক্তিত্ব জগতে বিরল। মানুষের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক মুক্তিই তাঁর নিরবচ্ছিন্ন সাধনা।রাজনীতি ও দর্শনের এই মহান চিন্তাবিদ অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আমরা অনন্য সাধারণ এই বাঙালির সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার আবেদন জানাচ্ছি ও রোগমুক্তির জন্য দেশবাসীর আন্তরিক দোয়া কামনা করছি।  বিবৃতি দাতারা হচ্ছেন জহিরুল ইসলাম খান পান্না,শামসুদ্দিন পেয়ারা,মুনিরউদ্দিন আহমেদ, আবুল হাসিব খান, আবুল বারাকাত দুলাল,মিয়া মোঃ ফেরদৌস, মোর্তাজুর রহমান, নাজমুল হক প্রধান,ডাঃ মোসতাক হোসেন,মোহন রায়হান, কামালউদ্দিন আহমেদ, খায়রুজ্জামান বাবুল, বাদল খান,বাহারুল হাসান সবুজ,ফজলুর রহমান মুরাদ,ত্বহা মুরাদ, আনোয়ারুল ইসলাম বাবু,মমিনুল ইসলাম,মোকলেসুর রহমান মুকুল,আব্দুল্লাহেল কাইউম, ওবায়দুর রহমান চুন্নু,শাহ কামাল, বদিউল আলম, আব্দুল্লাহেল বাকি,শহীদউদ্দিন মাহমুদ স্বপন,কামালউদ্দিন পাটোয়ারি, মোশাররফ হোসেন মন্টু।  দেশের বাইরে থেকে সুজা মাহমুদ, শামীম আহমেদ, নাজিম চৌধুরী ,আবু তাহের আহমেদ খিজির,লন্ডন থেকে , হাবিব বাবুল , হারুনুর রশিদ ,  জার্মানি থেকে , কামাল সাঈদ মোহন, সিকদার গিয়াস উদ্দিন, রায়হানুল ইসলাম  চৌধুরী ,সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন ,লেখক এবিএম সালেহ উদ্দীন সাংবাদিক মো:নাসির,সামসুঊদদিন আহমেদ  শামীম,হাজী আনোয়ার হোসেন লিটন,দেলওয়ার মানিক,জাহাংগীর কবির,ফিরোজ আহমেদ কল্লোল ,তসলিম উদ্দীন খান,আমেরিকা থেকে , নাজির মোহাম্মদ খসরু  ইটালি থেকে , মোহাম্মদ   ইলিয়াস মিয়া  ক্যানাডা থেকে ,কাজী আসাদুজ্জামান সুইজারল্যান্ড থেকে  এবং  বুলবুল তালুকদার অষ্ট্রিয়া থেকে, বিবৃতিদানকারীরা সবাই ৭০ -৮০ দশকের ছাত্রনেতা ।

উল্লেখ্য,সিরাজুল আলম খান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও সশস্ত্রযুদ্ধের  সংগঠক এবং ‘নিউক্লিয়াস-বিএলএফ’র প্রতিষ্ঠাতা সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

গত বুধবার ১৩ জানুয়ারী রাতে রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে তাকে ভর্তি করা হয়। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসকদের পরামর্শে রাত ১২টায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।
সিরাজুল আলম খানের ছোট ভাই ফেরদৌস আলম খান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, সন্ধ্যায় অসুস্থ বোধ করলে সিরাজুল আলম খানকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি বর্তমানে হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন।
৮০ বছর বয়সী সিরাজুল আলম খান উচ্চ রক্তচাপসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন।
এর আগে, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে দুবাই হাসপাতালে ভর্তি হন সাবেক এই ছাত্রনেতা ও রাজনীতিবিদ। নিউইয়র্ক থেকে দেশে ফেরার পথে বিমানে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালের ইমার্জেন্সিতে নেয়া হয় এবং সেখান থেকে সিসিইউতে নেয়া হয়।
ফলোআপ চিকিৎসার জন্য ২০১৯ সালের ৩১ জুলাই নিউইয়র্ক যান সিরাজুল আলম খান।ছবিতে নিউইয়কের জেএফকে এয়ারপোটে বাথেক সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন ,ফিরোজ মাহমুদ ,সিরাজুল আলম খান দাদা ভাই এবং হাজী আনোয়ার হোসেন ।ছবি:বাপসনিউজ।

এই সংবাদটি 1,240 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •