জালালাবাদ ল’সোসাইটির প্রীতি সম্মেলন, আইনজীবীদের সংগঠিত হওয়ার আহ্বান অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরীর - BANGLANEWSUS.COM
  • নিউইয়র্ক, বিকাল ৫:৩২, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ


 

জালালাবাদ ল’সোসাইটির প্রীতি সম্মেলন, আইনজীবীদের সংগঠিত হওয়ার আহ্বান অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরীর

editorbd
প্রকাশিত জুন ১২, ২০২৪
জালালাবাদ ল’সোসাইটির প্রীতি সম্মেলন, আইনজীবীদের সংগঠিত হওয়ার আহ্বান অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরীর

ডেস্ক রিপোর্ট: প্রবাসীদের যেকোনো আইনগত সমস্যায় সহযোগিতার হাত প্রসারিত করবে জালালাবাদ ল সোসাইটি ইউএসএ। প্রবাসে বা দেশে সংগঠনটির কোন পারিবারিক সদস্য বা প্রবাসী যে কেউ বিনামূল্যে আইনগত পরামর্শের জন্য সংগঠনটির সাথে যোগাযোগ করার আহ্বান জানানো হয়েছে। সংগঠনের উপদেষ্টা, যুক্তরাষ্ট্র সুপ্রিম কোর্টের অ্যাটর্নি এবং ডেমোক্রেটিক পার্টির ডিসট্রিক্ট লিডার এত লার্জ অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী বলেছেন, জালালাবাদ লো সোসাইটির মাধ্যমে যেকোনো প্রবাসীকে কোন ফি ছাড়াই তিনি পরামর্শ প্রদান করবেন। ৮জুন শনিবার নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে আয়োজিত জালালাবাদ ল‘ সোসাইটি ইউএসএ’র এক প্রীতি সম্মেলনে এসব কথা বলা হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেছেন অ্যাডভোকেট এমাদ উদ্দিন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন, অ্যাডভোকেট ইব্রাহীম চৌধুরী খোকন, অ্যাডভোকেট সৈয়দ মহসিন আহমেদ, অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই কাইয়ুম,অ্যাডভোকেট সাঈয়েদ মইন উদ্দিন জুয়েল এবং অ্যাডভোকেট আব্দুল ওয়াহিদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুফিয়ান আহমেদ চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস শহিদ আজাদ , সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম মইনুল, অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান শাবু , অ্যাডভোকেট জয়জিত আচার্য্য অ্যাডভোকেট মো: মুহি উদ্দিন, অ্যাডভোকেট মোঃ সায়েদ আহমেদ, অ্যাডভোকেট এ টি এম জুবেল চৌধুরী, মো: আখমাম খাঁন। দোয়া পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আশিক আহমেদ খান। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট বদরুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট মইন উদ্দিন, অ্যাডভোকেট ওলি উল্লাহ মারুফ, শাহ মোঃ বদরুজ্জামান প্রমুখ, আবু সাইদ প্রমুখ। সিলেট অঞ্চলের চার জেলা থেকে আসা যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত আইনজীবীদের নিয়ে গঠিত হয়েছে জালালাবাদ ল’ সোসাইটি অব ইউএসএ। এ সংগঠনের মাধ্যমে নিউইয়র্কসহ বাইরের রাজ্যে বসবাসরত বিপুল সংখ্যক আইনপেশার লোকজন সংগঠিত হচ্ছেন। প্রীতি সম্মেলনে তারা বলেছেন নিজেদের মধ্যে সংযোগ বৃদ্ধি করে জনসমাজের জন্য নিজেদের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সেবা প্রদানের জন্য তারা সংগঠিত হচ্ছেন। বেশকিছুদিন আগে থেকেই তাদের সংগঠিত হওয়ার এ প্রয়াসটি করোনা মহামারির কারণে স্থবির হয়ে পড়েছিল। নতুন করে সর্বত্র যোগাযোগ করা হচ্ছে শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই নয়, কানাডা সহ ইউরোপে বসবাসরত সিলেট অঞ্চলের আইনজীবীদের নিয়ে বড় ধরনের প্লাটফর্ম গড়ে তুলা হবে বলে সভায় বলা হয়েছে। বক্তারা বলেছেন, বাংলাদেশিদের প্রবাস যাত্রার পথিকৃৎ সিলেট অঞ্চলের প্রবাসীদের পাশে থাকবেন আইনজীবীরা। দেশের বাইরে বসবাসরত লোকজন প্রতিনিয়ত দেশে ও বিদেশে আইনগত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। পাশাপাশি দেশের পুরোনো কিছু আইন প্রবাসীদের হয়রানির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। জালালাবাদ ল; সোসাইটির মাধ্যমে প্রবাসীদের সেবা দেয়া ছাড়াও দেশে ও প্রবাসে আইনগত সহযোগিতার হাত প্রসারিত করা হবে। দেশে রেখে আসা জমি জমা রক্ষাসহ প্রবাসে দূতাবাস ও কনস্যুলেটে প্রবাসীরা প্রতিনিয়ত বিপত্তির সম্মুখীন হচ্ছেন। এসব নিয়ে সংগঠনটি কাজ করবে। পাশাপাশি প্রবাসে নাগরিক অধিকার, পরিবেশ, জলবায়ু, অভিবাসন আইনসহ নানা বিষয়ে কাজ করার জন্য সমগঠনটি কর্মকৌশল নির্ধারিত করবে। বক্তারা বলেছেন, আইনজীবীরা যেকোনো সমাজের সবচেয়ে অগ্রসর পেশাজীবী হিসেবে পরিচিত। বিদেশে অবস্থান করার কারণে এসব পেশাজীবী জনসমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন থাকার কোনও অবকাশ নেই। নিজেদের পরিবারগুলোর সাথে সংযোগ বৃদ্ধি করে জনসমাজের পাশে থাকার জন্য কাজ করতে হবে। পাশাপাশি অভিবাসী হিসেবে প্রবাসে নিজেদের অধিকারের লড়াই, নিজেদের পেশার বিস্তৃতিসহ নানা কাজে সক্রিয় হওয়ার জন্য আইনজীবীদের প্রতি বক্তারা আহ্বান জানিয়েছেন। অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী বলেছেন, দেশে থেকে আসা নবীন আইনজীবীরা প্রবাসেও এ পেশার সাথে সম্পৃক্ত হতে পারেন। এজন্য তিনি তাঁর সহযোগিতা ও পরামর্শ অবারিত করে রেখেছেন। প্রবাসে এসব আইনজীবীরা নিজেরা শক্তিশালী হলেও প্রবাসীদের দক্ষতার সাথে সেবা দিতে পারবেন বলে মঈন চৌধুরী উল্লেখ করেন। তিনি বলেছেন, জালালাবাদ ল’ সোসাইটির মাধ্যমে এখন থেকে যেকোনো প্রবাসী কোন ফি ছাড়াই তাঁর পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন। আইনজীবীদের প্রবাসী নাগরিক সমাজে আরও সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী আহ্বান জানান এবং এক্ষেত্রে তিনি সব সময় পাশে থাকবেন বলে ঘোষণা দেন।

সুত্র:ইউএসনিউজ অনলাইন ডটকম

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।