যুক্তরাষ্ট্রে ৬ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূতের যোগদান

প্রকাশিত:রবিবার, ১৭ জানু ২০২১ ১০:০১

যুক্তরাষ্ট্রে ৬ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূতের যোগদান

নিউজ ডেস্ক, নিউইয়র্ক : বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম ৬ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে যুক্তরাষ্ট্রে কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন  । স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়াশিংটন ডিসি’র বাংলাদেশ দূতাবাসে যোগদান করেছেন। ওয়াশিংটন ডিসি’র একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার যোগদান উপলক্ষ্যে দূতাবাসে নিযুক্ত কর্মকর্তা এবং কর্মচারীবৃন্দ তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এর আগে তিনি দূতাবাসে সংরক্ষিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মস্তক হইতে আবক্ষ দেহাংশে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে রাষ্ট্রদূত দূতাবাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সঙ্গে সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখেন। রাষ্ট্রদূত ইসলাম সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে বাংলাদেশের স্বার্থ রক্ষায় সর্বোচ্চ অবদান রাখার আহ্বান জানান। তিনি কর্মকর্তাদের সাথে পৃথক সভা করেন এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করেন। রাষ্ট্রদূত কনস্যুলার সেবার অধিকতর উন্নয়নের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম বৃদ্ধির উপরও বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করেন।

রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম নতুন দায়িত্ব গ্রহণের জন্য ৮ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসিতে এসে পৌঁছান। মাত্র ৬ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইন শেষে বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মস্থলে যোগদান করেন। ২০১৪ সালের জুন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্টদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসা কূটনীতিক মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিনের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন শহীদুল। তিনি ১৬তম রাষ্ট্রদূত।

রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম ওয়াশিংটন ডিসিতে এর আগে বাংলাদেশ মিশনের উপ-প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ২০২০ সালের ২৭ আগস্ট বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়াটিভ ফর মাল্টি-সেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনোমিক কর্পোরেশন (বিআইএমএসটিইসি)’র মহাসচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসা পেশাদার এই কূটনীতিককে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দেয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

দুই দফায় পাঁচ বছর দায়িত্ব পালনের পর ২০১৯ সালের ১১ জুলাই রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিনের মেয়াদ তৃতীয় দফায় এক বছরের জন্য বাড়িয়েছিল সরকার। তার স্থলাভিষিক্ত হতে চলা শহীদুল ইসলাম বিমসটেকে দ্বিতীয় মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করে আসছেন ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর থেকে। বিমসটেকের দ্বিতীয় মহাসচিব বাংলাদেশি শহীদুল ইসলাম ২০০১ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ মিশনে কাউন্সেলর এবং মিনিস্টার বা মিশন উপ-প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৮৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে বিসিএস পররাষ্ট্র ক্যাডারে যোগ দেন শহীদুল ইসলাম। বর্ণাঢ্য কূটনৈতিক ক্যারিয়ারে দক্ষিণ কোরিয়া ও ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন তিনি।

২০১২ সাল থেকে প্যারিস মিশনে থাকার সময় ইউনেস্কোতে স্থায়ী প্রতিনিধি এবং বিভিন্ন মেয়াদে রোমানিয়া, আলজেরিয়া, আইভরি কোস্ট ও ক্যামেরুনে রাষ্ট্রদূত বা হাই কমিশনারের দায়িত্বও ছিল তার কাঁধে।

১৯৯২ থেকে ১৯৯৪ সময়ে কলকাতায় বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনে দ্বিতীয় ও প্রথম সচিবের দায়িত্বে ছিলেন এই কূটনীতিক। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমেরিকাস, প্যাসিফিক ও কাউন্টার টেররিজম এবং ইউরোপ উইংয়ের মহাপরিচালকসহ বিভিন্ন দায়িত্বও সামলেছেন তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী শহীদুল প্যারিসের ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ পাবলিক অ্যাডমিনস্ট্রেশন থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্কে পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট ডিপ্লোমা করেছেন।

 

এই সংবাদটি 1,242 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •