বর্ষা বিদায় শুরু, বাড়বে বজ্রপাত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ১২ অক্টো ২০২১ ০২:১০

বর্ষা বিদায় শুরু, বাড়বে বজ্রপাত

নিউজ ডেস্কঃ  দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু তথা বর্ষা বিদায় নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এক্ষেত্রে আগামী দু’সপ্তাহে বজ্রপাত বাড়বে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, বর্ষা বিদায়ের সময় দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বঙ্গোপসাগর থেকে এসে ধীরে ধীরে দেশের সীমানা পেরিয়ে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে ছড়িয়ে পড়ে। একইভাবে সেটা নিচের দিকে নামতে শুরু করে। আর সেই প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার থেকে দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বর্ষা বিদায় নেবে। ধীরে ধীরে এটি মধ্যাঞ্চল ও পরে দক্ষিণাঞ্চল তথা সারাদেশ থেকেই বিদায় নেবে। আর এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে দুই সপ্তাহের মতো সময় লাগবে। অর্থাৎ অক্টোবরে শেষের দিকেই দেশ থেকে পুরোপুরিভাবে বর্ষা বিদায় নেবে।

আবহাওয়া মো. বজলুর রশিদ জানিয়েছেন, বর্ষা বিদায় নেওয়ার অর্থ হচ্ছে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রত্যাহার, এই বায়ু আসে বঙ্গোপসাগর থেকে। সঙ্গে নিয়ে আসে প্রচুর জলীয়বাষ্প। কাজেই যে স্থান থেকে বর্ষা বিদায় নেয়, সে জায়গাটায় চলে আসে উত্তর-পশ্চিম বা উত্তর-পূর্ব শুষ্ক বায়ু। আর এই প্রক্রিয়ায় চলার সময় দুই ধরনের বায়ুর পারস্পরিক সংস্পর্শের সৃষ্টি হলেই বজ্রপাত বাড়ে। তাই আগামী দু’সপ্তাহ দেশে বজ্রপাত বাড়বে। এই সময়েই বিদায় নেবে বর্ষা।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় বিরাজ করছে।
আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ঢাকায় এ সময় দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ১০-১৫ কিমি। দু’দিনে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নেবে। বর্ধিত পাঁচ দিনে বৃষ্টিপাত বাড়তে পারে। গতকাল সোমবার দেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে কুতুবদিয়ায়, ৩৬ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে সিলেটে ৩৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় বৃষ্টিপাত হয়নি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এই সংবাদটি 1,231 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •