ন্যু ক্যাম্পে বার্সাকে জিততে দেয়নি রিয়াল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ০৭ ফেব্রু ২০১৯ ০৫:০২

ন্যু ক্যাম্পে বার্সাকে জিততে দেয়নি রিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক ::  ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো চলে যাওয়ার পর রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগের শক্তি অনেকাংশ কমে যায়। সেই শক্তি নিয়ে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে বার্সেলোনার কাছে তুলোধুনো হয় রিয়াল। বুধবার রাতে স্প্যানিশ কোপা ডেল রের সেমিফাইনাল প্রথম লেগে মুখোমুখি হয় বার্সা ও রিয়াল।ন্যু-ক্যাম্পে বার্সেলোনার সঙ্গে এ রিয়াল মাদ্রিদ পেরে উঠবে সেটির পক্ষে বাজি ধরার লোক কমই ছিল। কিন্তু ঘরের মাঠে বার্সাকে জিততে দেয়নি রিয়াল। ১-১ গোলে ড্র করে কোপা ডেল রের ফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন টিকিয়ে রেখেছে সান্তিয়াগো সোলারির শিষ্যরা।

ম্যাচের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ বাড়ানো রিয়াল দারুণ গোছানো এক আক্রমণে ষষ্ঠ মিনিটে এগিয়ে যায়। বাঁ-দিক থেকে ভিনিসিউস জুনিয়রের ক্রস ধরে ছোট ডি-বক্সে বল বাড়ান করিম বেনজেমা। আর প্রথম ছোঁয়ায় নিখুঁত শটে বল জালে পাঠান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ভাসকেস। বার্সেলোনার বিপক্ষে এ নিয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ ১৫টি অ্যাওয়ে ম্যাচের প্রতিটিতেই গোলের দেখা পেল রিয়াল।

বাঁ-দিক দিয়ে গতিতে বারবার বার্সেলোনার রক্ষণে ভীতি ছড়ানো ভিনিসিউস ২২তম মিনিটে আরেকটি দারুণ ক্রস বাড়ান ডি-বক্সে। ফাঁকায় পেয়েছিলেন টনি ক্রুস; কিন্তু বল নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হন তিনি। সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠা বার্সেলোনা ৩৩তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয়। মালকমের ফ্রি-কিকে ইভান রাকিতিচের হেড গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও ক্রসবারে বাধা পায়।  দুই মিনিট পর আট গজ দূর থেকে লুইস সুয়ারেসের বাঁ পায়ের শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন কেইলর নাভাস।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে রিয়ালের খেলায় গতির অভাব ছিল স্পষ্ট। সেই সুযোগে চাপ বাড়ানো বার্সেলোনা ৫৭তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত সমতাসূচক গোলের দেখা পায়। রক্ষণ ভেঙে বাঁ-দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়া জর্দি আলবাকে ঠেকাতে ছুটে আসেন নাভাস। আলগা বল পেয়ে জোরালো শট নেন সুয়ারেস; বল পোস্টে লেগে চলে যায় ডান দিকে অরক্ষিত মালকমের পায়ে। বাঁ পায়ের উঁচু শটে কাছের পোস্ট ঘেঁষে বল ঠিকানায় পাঠান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

৬৪তম মিনিটে উভয় দল একই সঙ্গে দুটি করে পরিবর্তন আনে। কৌতিনিয়ো ও রাকিতিচকে বসিয়ে মেসি ও আর্তুরো ভিদালকে নামায় বার্সেলোনা। আর ভিনিসিউস ও মার্কোস লরেন্তেকে তুলে গ্যারেথ বেল ও কাসেমিরোকে নামায় অতিথিরা। তাতে ম্যাচে নতুন করে গতি ফেরে। মাঠে নামার খানিক পরেই দারুণ ক্ষিপ্রতায় কজনকে কাটিয়ে অনেকটা এগিয়ে যান মেসি, তাকে ফাউল করে থামান ভাসকেস।

৮৩তম মিনিটে বেনজেমার পাস ডি-বক্সের মুখে পেয়েছিলেন বেল। ভিতরে ঢুকে এক জনকে কাটান ওয়েলস ফরোয়ার্ড; কিন্তু শেষ পর্যন্ত বলের নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেননি তিনি। ২৭ ফেব্রুয়ারি ফিরতি লেগে রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে খেলতে যাবে বার্সেলোনা। এখন দেখার বিষয় রিয়ালের মাঠে ভিন্ন ফল পায় কিনা কাতালানরা।

এই সংবাদটি 1,226 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •