‘মার্কিন ত্রাণ যারাই গ্রহণ করেছে ধ্বংস হয়েছে’

প্রকাশিত:রবিবার, ১০ ফেব্রু ২০১৯ ০৩:০২

‘মার্কিন ত্রাণ যারাই গ্রহণ করেছে ধ্বংস হয়েছে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাঠানো ত্রাণকে ‘বিষ’ বলে অভিহিত করে ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো বলেছেন, কোনো অবস্থাতেই এই ত্রাণ ভেনিজুয়েলায় প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। শনিবার রাজধানী কারাকাসে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

মাদুরো বলেন, মার্কিন ত্রাণ ‘লোক দেখানো মানবিকতা’। এটি এক ধরনের ‘বিষ’। মার্কিন ত্রাণ যারাই গ্রহণ করেছে তারা ধ্বংস হয়েছে। তাদের ত্রাণ গ্রহণ করে ধ্বংস হয়ে গেছে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া ও লেবানন।

আমেরিকা ত্রাণের নামে ভেনিজুয়েলার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করতে চায় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো ত্রাণ কলম্বিয়ার সীমান্তবর্তী শহর কুকুতায় আটকে আছে। সেখানে অবস্থানরত স্বেচ্ছাসেবকরাও অবস্থান করছেন। সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ময়দা, মরিচ, চাল এবং রান্নার তেল এবং ব্যক্তিগত টুথব্রাশ এবং সাবান, পাঠিয়েছে।

এসব অনুদান ভেনেজুয়েলার স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুয়াইদোর অনুরোধে মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকে পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে ভেনেজুয়েলার একটি হাসপাতাল জানায়, সেখানে গত সপ্তাহে ১৪ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এসব শিশু দূষিত খাবার ও পানির কারণে বিভিন্ন রোগে ভুগছিল।

ওই হাসপাতালের দায়িত্বরত এক কর্মচারী সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরাকে জানায়, সেখানে আরো ডজন খানেকের মত শিশু নানা রোগে ভুগছে কিন্তু প্রয়োজনীয় ওষুধ না থাকায় তাদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

গত এক মাস ধরে ভেনেজুয়েলায় তীব্র রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা চলছে। গত বছর অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জের ধরে গত মাসে প্রেসিডেন্ট মাদুরো দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ নেয়ার পর এই সংকট শুরু হয়।

বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে নিজেকে দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি ইউরোপের বেশ কিছু দেশ গুয়াইদোকে ভেনেজুয়েলার অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। তবে রাশিয়া, চীন, ইরান ও তুরস্কসহ বিশ্বের আরও বহু দেশ প্রেসিডেন্ট মাদুরোর প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেছেন।

এই সংবাদটি 1,228 বার পড়া হয়েছে

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ